কূটনৈতিক জোনের ৩৪২ টি রেস্টুরেন্ট উচ্ছেদের চিঠি।

PUBLISHED:Jul 20, 2016 | UPDATED:06:03 AM, Jul 20, 2016

কূটনৈতিক জোনখ্যাত গুলশান-বনানী-বারিধারা থেকে ৩৪২ রেস্টুরেন্ট উচ্ছেদ করবে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। এ লক্ষ্যে ভবন মালিকদের চিঠি দেয়া হচ্ছে।দ্রুততম সময়ে প্রতিষ্ঠানগুলো সরিয়ে না নিলে পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস ও টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে। এ লক্ষে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় ১৮ জুলাই থেকে সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে চিঠি পাঠানো শুরু করেছে ।

এ ব্যাপারে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন রোববার যুগান্তরকে বলেন, ‘মন্ত্রিসভার বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে আবাসিক এলাকা থেকে অবৈধ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান অপসারণে আমরা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। তবে মানবিক দিক বিবেচনায় কাজের গতি কম ছিল। কিন্তু গুলশানের অবৈধ রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার পর আমরা কঠোর অবস্থানে নিতে বাধ্য হয়েছি। এ অবস্থান থেকে আমরা এক চুলও নড়ব না।’

 

রাজউকের তালিকা অনুযায়ী, গুলশান-বনানী-বারিধারায় অবৈধভাবে ৩৪২টি রেস্টুরেন্ট গড়ে উঠেছে। এর মধ্যে শুধু গুলশানে রেস্টুরেন্ট আছে ১৯৩টি, বনানীতে ১৩৯টি,  বারিধারা এলাকায় ১০টি রেস্টুরেন্ট রয়েছে।

রোববার সচিবালয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক সভা থেকে রাজউকসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে কঠোর অবস্থান নিয়ে কাজ করার নির্দেশ দেয়া হয়। এ সভায় সভাপতিত্ব করেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, ‘গুলশান-বনানী-বারিধারাসহ রাজধানীর অন্যান্য এলাকা থেকে অবৈধ প্রতিষ্ঠান অপসারণে কঠোর অবস্থানে থাকবে সরকার। এক্ষেত্রে ক্ষমতাবানদের প্রভাব তোয়াক্কা করা হবে না।’ তিনি বলেন, ‘হোটেল-রেঁস্তোরাসহ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান শিগগিরই উচ্ছেদ করা হবে।'

প্রসঙ্গত পহেলা জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার পর অভিজাত এসব এলাকার অবৈধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হোটেল-রেস্তোরঁাঁ ও হাসপাতাল বন্ধের সিদ্ধান্ত দ্রুত বাস্তবায়নের তোড়জোড় শুরু হয়। ঈদের ছুটির পর প্রথম কর্মদিবসে রোববার সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে গুলশান ও আশপাশের এলাকায় অননুমোদিত এসব প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়।

এক প্রশ্নের জবাবে গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, ‘গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁটি অবৈধভাবে গড়ে উঠেছিল। শিগগিরই ওই রেস্তোরাঁর মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

গুলশান বনানী ও বারিধারায় উচ্ছেদের তালিকায় থাকা  রেস্টুরেন্ট সমূহের তালিকা নিচে দেওয়া হলো :

গুলশান : ফুড প্যালেজ রেস্টুরেন্ট, মল্লিক স্ল্যাকস রেস্টুরেন্ট, দাওয়াত হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট, থাই ইমারাল্ড রেস্টুরেন্ট, C.F.C রেস্টুরেন্ট, দি মিরাজ রেস্টুরেন্ট, সরমা হাউজ ক্লাসিক রক কপি-কো, জাফরান রেস্টুরেন্ট, সুপার স্টার ফাস্টফুড, রুচিতম রেস্টুরেন্ট, প্রিমিয়াম সুইটস, ডেস্টিনেসন ফুডমল, দি মুঘল কিচেন, টেস্টি বাইট, কেনারি পার্ক, নোওয়াব চাটরা রেস্টুরেন্ট, পাঁচ মিশালী ফাস্টফুড এন্ড রেস্টুরেন্ট বেইলী পিঠা ঘর, লাউঞ্জ এন্ড রেস্টুরেন্ট, এফ কাফে (খাবার হোটেল) এবং , Bread & Beyond (রেস্টুরেন্ট), Lounge comida (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), Raffle Sia (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট) A & W (রেস্টুরেন্ট), Grand oriental (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), জাফরান ও কিবাহান (রেস্টুরেন্ট), হোটেল দি ক্রাইস্টাল ক্রাউন (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), টাইম আউট (রেস্টুরেন্ট), রিংস ইন (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), দি রেস্টুরেন্ট উক এন্ড ফায়ার, কস্তরী গার্ডেন (রেস্টুরেন্ট), Peda ting ting (রেস্টুরেন্ট), আলিফ গার্ডেন (রেস্টুরেন্ট),The Mandarin (রেস্টুরেন্ট), Samdado Japanese Cuisinc (রেস্টুরেন্ট), অল কমিউনিটি ক্লাব লিমিটেড এবং রেস্টুরেন্ট, Four Points by Sheraton (আবাসিক হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট), ট্রোপিক্যাল ডেইজি (আবাসিক হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট) Bulls N Barrels (রেস্টুরেন্ট) Amari Dhaka (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), Lakes Shore (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট) Hotel Lake Breeze (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), Sura Korean Restaurant,ধান সিঁড়ি রেস্তোরাঁ, গুলশান প্লাজা রেস্তোরাঁ, ওয়েসটিন (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), অপূর্ব রেস্তোরাঁ, বারলিন বেকারী, জাকিয়া রেস্তোরাঁ, কুপার্স দোকান নং ২৪-২৫, আমেরিকান বারগার দোকান নং ২১-২২, কুফা কফি লাউঞ্জ (মেট্রো পলিটন শপিং প্লাজা গুলশান সার্কেল-২), নান্না বিরানী, Slidess (রেস্টুরেন্ট), Dae Jangs geum, The Flame Restaurent, Goong, The Catel, Umai Restaurent, Quality inn, Gardenia Restura, tokyo japaneis Restura, নিউ আরিরা (রেস্টুরেন্ট), কেফে-৫২, কাবাব ফ্যাক্টরী, Bitter Sweet, করাই গোশত, দি ওয়ে ঢাকা (রেস্টুরেন্ট), Marriot Guest House (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), C. F. C (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), খাজনা রেস্টুরেন্ট, Spaca (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), Cafe De Crepe (রেস্টুরেন্ট), বাহারাত রেস্টুরেন্ট,এরিস্টকেরেট ইন (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট), গ্লোরিয়া জিন্স কফি (রেস্টুরেন্ট), Suraon (রেস্টুরেন্ট), Soi-71 (রেস্টুরেন্ট), Lovin oven (বেকারী), হলি আর্টিসান (রেস্টুরেন্ট), Nordic Club +রেস্টুরেন্ট),Mantra fashion Cafe (রেস্টুরেন্ট), Six Seasons (আবাসিক হোটেল/রেস্টুরেন্ট),সি. পি ফাইভ স্টার, কেফে-১০৮, জহির রেস্তোরাঁ, হেরিটেজ, ইস্পাইস ক্লাব রেস্টুরেন্ট,  চিটাগাং বুল,সেঞ্চুরি পার্ক (ফোর স্টার হোটেল), দি কফি বিওন এন্ড টি লিপ, সেলুরা গ্লোডেন পিস রেস্টুরেন্ট (আবাসিক হোটেল রেস্টুরেন্ট), ইজমি রেস্টুরেন্ট, সাদা ভাত (রেস্টুরেন্ট), দাওয়াত (রেস্টুরেন্ট), দি ওলিভ (রেস্টুরেন্ট), Bella Italia, Pizza Inn, Fasion Cafe, কস্তুরী (রেস্টুরেন্ট), খুশবু (রেস্টুরেন্ট), Saifwan's Kitchen, La Dlplomat (Rest. &-Bar) বিন্নি রেস্তোরাঁ, ফয়সাল রেস্টুরেন্ট, ফকুরুদ্দিন ঝালকারী, ফকুরুদ্দিন রেস্টুরেন্ট, Emma Nuellis Banguet Hall (কমিউনিটি + রেস্টুরেন্ট), New Emma Nuellis Banguet Hall (কমিউনিটি + রেস্টুরেন্ট), চাপ সামলাও (রেস্টুরেন্ট), New Zealand Natural (রেস্টুরেন্ট), Barcode (রেস্টুরেন্ট), এভাকাশ ক্যাফে এন্ড রেস্টুরেন্ট, Chewy Junior (Fish & Co.) কে. এফ. সি (রেস্টুরেন্ট), গ্লোরিয়া জিন্স কফি, ভিলেজ (রেস্টুরেন্ট), Corner Restaurant, পূর্ণিমা ক্যাফে, মিঃ বাকের, কোল্ড স্টোন কফি, আজমেরী রেস্টুরেন্ট, পিজা হাট (রেস্টুরেন্ট), নানডুস (রেস্টুরেন্ট), ঢাকা বিরানী হাউস, হাবিব রেস্টুরেন্ট, শারমিন ফাস্ট ফুড, গুলশান বিরানী হাউস, স্পাইসি চিকেন,, দি কেফে বিবিকিউ এন্ড নানডুস, খানা খাজানা + বাটলার চকলেট ক্যাফে Just Juice (রেস্টুরেন্ট), মিরাকি (রেস্টুরেন্ট), এক্সিকিউটিভ ইন (হোটেল), Sbarro (রেস্টুরেন্ট), খুশবু বিরানী হাউজ, খাজানা মিঠাই, কুপাকুফি, বিস্ত্র-ই রেস্টুরেন্ট, বি. এফ. সি (রেস্টুরেন্ট), খুশবু হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট-২, কস্তুরী কিচেন রেস্টুরেন্ট, পিয়ালা কাপি, ব্লু-লেগুন ফিস এন্ড চিপস, মিঃ বাকের, Fiesta, Poplar, Handi Restaurant, Topkapi Restaurant, Buffet (Batton Rose), Move N pick, Sausly, Arabian Grill & Platter, K.F.C (Restaurant), Pizza Hut, Bamboo Shoot, Coffee republic, Signatures.

বনানী :  প্লাটান রেস্টুরেন্ট, Pizza Guy, Cafe Campus, হাবিব বিরিয়ানী অ্যান্ড কাবাব ঘর, EASE WATER INDIAN AND THAI RESTAURANT, লি. পিজারিয়া টেক আউট ইয়োলো রেস্টুরেন্ট, থাই ন্যাশন রেস্টুরেন্ট, লাইভ কিচেন,নিউ আমন্ত্রণ হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট, লাইম অ্যান্ড থাইম, টাফটান, LOTTER D-85 FOOD & JUICE BAR,রসগোল্লা বিউটি লাচ্ছি ও ফালুদা, টোকিও এক্সপ্রেস,  HANAI INDIAN BISTOR RESTAURANT, HUNGER STORY HAKKA CHINES AND THAI KABBAB, TARKA RESTAURANT, HAKKA JHAKA RESTAURANT, SALAMÕS KITCHEN RESTAURANT & CATRING, Food Work, Maka Cafe & Bistro, The Dining Room, Nandus, BFC, Club 11, Nacho Bell, Kobe, Cafe Hollywood, Street 11, Kings Confectionery, BG Sausly Food, Cofe World, Food Book, Sakib'S, Hot Cafe, Club gelato, Platinum gran, Entro, Platinum Sweets, Oven Frees, BON Cafe & Yo Beris, Pizza Hut, Bistro Via, Smoke Music Cafe, Gourmat Parata, Euphoria, Foode, Asian Bistro, New Zealand Cafe, Sublovers, Pizza Inn, AL Fresco, ICE AGE, CATHAY, Khazana Methai, Rasna Billas, Shing Heong, Do Miok, Village Sweets, Blu Moon, Quesadilla, Cream & Fudge, Droom, Krispy Kreme, সাজনা, মন্সটার ফুড, টেস্টবাড, চি গুস্তা রেস্টুরেন্ট দি ওরিয়েন্টাল লাউস, PAOTAO THAI RESTAURANT, Rice and Noodles, এবসলিউট থাই, LAKE SHORE BANINE HOTEL,SWISS GARDEN, ট্রি হাউজ BAR & JUICE, NORTHERN RESTAURANT, DHABA RESTAURANT INDIAN THAI, স্টার কাবাব রেস্টুরেন্ট,সালিমার গার্ডেন রেস্তোরাঁ, আঞ্চলিক রেস্টুরেন্ট, আদি ঢাকা রেস্টুরেন্ট, গোল্ড স্টার রেস্তোরাঁ, হাজী রেস্তোরাঁ, Dia Kitchen, Cheong Shing Chiness, A Restoren, Marina Hotel, লুয়ামস থাই ফুড, ফিটনেস প্লাস, TIME OUT RESTAURANT,গেলাসিয়া হোটেল এবং রিসোর্ট, Roll Xpress Cafe, De Castle, Linda Restaurant, মিলানজ রেস্টুরেন্ট, হোটেল ঢাকা গার্ডেন ইন, আট্টিন রেস্টুরেন্ট, Fashion hatt, LOL Fast Food, অর চার্জ সুইজ অ্যান্ড হোটেল, হোটেল সুইজ, হাক্কা চাইনিজ হোটেল, রক রেস্টুরেন্ট/হোটেল, টুরকিজ বাজার হোটেল, মেজবান বারি রেস্টুরেন্ট,আহেলি কাবাব হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট, চালস রেস্টুরেন্ট অ্যান্ড হোটেল, আমেরিকান বারগার, বুমারস রেস্টুরেন্ট, বংরিং রেস্টুরেন্ট, চাংচাই চাইনিজ রেস্টুরেন্ট, ম্যানহাটন ফিস মার্কেট, পাপারুটি, প্রিতম, ইরাম কফি, হোটেল শেরিনা, কেএফসি, বোখারা রেস্টুরেন্ট, স্কাই রুফ হোটেল, দুসাই হোটেল, সরমা হার্ট, হোটেল সুইট ড্রিম।

বারিধারা : কপারস রেস্টুরেন্ট।  

তথ্য সূত্র : http://www.jugantor.com/first-page/2016/07/18/45857

foodies voice good food dhaka foodies restaurants
Was this review helpful? Yes
0 Helpful votes