ঈদে ইচ্ছেমত গরুর মাংস খেয়েও সুস্থ থাকার ৫টি অসাধারণ কৌশল

Health | By #Foodiez news Created Sep 22, 2015

কোরবানির ঈদ এলে আমরা ধরেই নেই আমরা ইচ্ছেমত গরু-খাসির মাংস খাবো এবং স্বাস্থ্যের বারোটা বেজে যাবে। আপনি কী জানেন, গরুর মাংস খেয়েও দিব্যি সুস্থ থাকা যায়?

 

সুস্থ থাকার জন্য আপনাকে অনুসরণ করতে হবে ছোট্ট কিছু কৌশল।

 

১) চর্বি ফেলে দিয়ে মাংস খান

কসাই এর কাছে থেকে মাংস আসার পর দেখা যায় মাংসে প্রচুর চর্বি থাকে। ওজন বাড়া এবং বিভিন্ন রোগ বেড়ে যাবার জন্য কিন্তু এই চর্বিই দায়ী। এসব কারণে মাংস থেকে কেটে ফেলে দিন যতটা সম্ভব। অনেকেই চর্বিযুক্ত মাংস পছন্দ করেন কিন্তু স্বাস্থ্যের প্রতি মায়া থাকলে এই চর্বিটুকু বাদ দেওয়াই আপনার জন্য ভালো।


২) অতিরিক্ত তেল-চর্বি দিয়ে রান্না করবেন না

মাংস রান্নার সময়ে অতিরিক্ত চর্বি তো বা দেবেনই, সাথে অতিরিক্ত তেল-চর্বি না দিয়েই রান্না করার চেষ্টা করুন। চর্বি ফেলে দেবার পরেও মাংসের ভেতরে যতটা চর্বি থাকে তা রান্নার জন্য যথেষ্ট। এতে আরও চর্বি বা তেল যোগ করলে রান্না হয়তো মজা হবে কিন্তু স্বাস্থ্যের হবে ক্ষতি।


৩) বেশি করে সবজি খান মাংসের সাথে

কোরবানি এলেই যে সবজি খাওয়া বাদ দিতে হবে তা কিন্তু নয়। বরং সুষম খাদ্যভ্যাস বজায় রাখার জন্য অনেকটা করে সবজি খাবেন প্রতিটি বার মাংস খাওয়ার সময়ে। খেতে পারেন সালাদ অথবা সবজির তরকারি। মাংসের সাথেও সবজি দিয়েই রান্না করতে পারেন।


৪) কিমা থেকে ঝরিয়ে ফেলুন চর্বি

মাংসের টুকরো থেকে চর্বি কেটে সরিয়ে ফেলা যতো সহজ, কিমা থেকে চর্বি কমানো তত সহজ না বলে মনে করেন অনেকে। আসলে কিন্তু তা নয়। বেশ কয়েকটি উপায়ে কিমা থেকে চর্বি সরিয়ে ফেলতে পারেন। কড়াইতে কিমা একটু ভেজে নিন, এতে চর্বিটা গলে বের হয়ে আসবে। এই চর্বিটুকু কড়াই কাত করে ফেলে দিন। এছাড়াও ঝাঁঝরি চামচে করে মাংস তুলে নিতে পারেন এতে চর্বিটা আলাদা হয়ে যাবে। মাংসটুকু তুলে পেপার টাওয়েল দিয়ে শুষে নিতে পারেন চর্বিটুকু। এছাড়াও গরম পানি ব্যবহার করতে পারেন। একটি ঝাঁঝরি বোলে নিন মাংসের কিমাটুকু। এরপর প্রায় ফুটন্ত গরম পানি ঢালতে থাকুন এর ওপরে। পানির সাথে চর্বিটুকু গলে চলে যাবে। পানি ঢেলে দেবার পর পাঁচ মিনিট ধরে পানিটা ঝরিয়ে নিন।


৫) অতিরিক্ত খাবেন না

দৈনিক কিছু পরিমাণ প্রোটিন খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্যই জরুরী। কিন্তু অতিরিক্তও খাওয়া যাবে না। অনেকে মনে করেন কোরবানির সময়টাতেই বেশি করে খেয়ে নেবেন। কিন্তু তা না করাই ভালো। দৈনিক ৯০ গ্রামের বেশি মাংস না খাওয়ার চেষ্টা করুন।

Source: http://www.priyo.com/2015/Sep/20/170100-ঈদে-গরুর-মাংস-খেয়েও-থাকুন-সুস্থ

Was this review helpful? Yes
0 Helpful votes

Comments (0)

{{comment.CommentText}}

{{comment.CommentDateFormated}} Like